ক’দিন বাদের আমেরিকার মসনদে বসার ভোটযুদ্ধ। যেখানে ডেমোক্রেটদের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবরিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু ভোটের আগেই নানা সমালোচনায় জড়াচ্ছেন ট্রাম্প। এবার নিজের মেয়ের স্তন নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করলেন হিলার এই প্রতিদ্বন্দ্বী। নারীদের নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অশ্লীল মন্তব্য করা ২০০৫ সালের ভিডিওটি প্রকাশের পর থেকে সর্বত্র, এমনকি নিজের দলের সদস্যদের পক্ষ থেকেও তীব্র সমালোচনার মুখোমুখি হচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভিডিওটি প্রকাশের পর নারী ও নারীদেহ নিয়ে ট্রাম্পের স্থূল ও অপমানজনক মন্তব্যের এমন আরও অনেক নতুন তথ্যই বেরিয়ে আসছে বেশ কিছু সংবাদ প্রতিবেদনে, যার বেশিরভাগেরই বিষয়বস্তু ট্রাম্পের নিজের মেয়ে। রেডিও ব্যক্তিত্ব হাওয়ার্ড স্টার্নকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দু’দশকেরও বেশি সময় ধরে দেয়া সাক্ষাৎকারগুলোর অডিও বিশ্লেষণ করে এর মূল কিছু অংশ প্রকাশ করেছে , যেখানে ট্রাম্প বারবার তার মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের দেহ নিয়ে সরস মন্তব্য করেছেন। এছাড়াও প্রকাশিত ভিডিওর মতো সাধারণভাবেই নারীদের নিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলেছেন তিনি। ২০০৬ সালের অক্টোবরে এক সাক্ষাৎকারে হাওয়ার্ড স্টার্ন ইভাঙ্কার স্তন নিয়ে মন্তব্য করায় ট্রাম্প বলেন, ‘ইভাঙ্কা সব সময়ই খুবই যৌন আবেদনময়ী। সে প্রায় ৬ ফুট লম্বা এবং একজন অসাধারণ সুন্দরী। ওর স্তন অনেক উন্নত। আকর্ষণীয়।’ এমনকি এর দু’বছর পর আরেক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প স্টার্নকে ইভাঙ্কা সম্পর্কে অশ্লীল ভাষায় প্রশংসা করারও অনুমতি দেন। এছাড়া নারীর বয়সভিত্তিক বৈশিষ্ট্য নিয়েও আলোচনা ছিল সাক্ষাৎকারগুলোর বিভিন্ন অংশে। আর মাত্র এক মাস বাকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের। এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে বিতর্কিত ভিডিও সাক্ষাৎকার প্রচারের পর থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে সমালোচনা ও বিরোধিতার মুখে আছেন এই রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। ট্রাম্পের নিজের দলেরই অনেকে তার সমর্থন থেকে সরে এসেছেন। অনেকে আবার তাকেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলছেন। এই পরিস্থিতি সামাল না দিতেই সিএনএন প্রকাশ করল এসব অডিও ক্লিপ। প্রথম ধাক্কায় নির্বাচন থেকে না সরার দৃঢ় প্রতিজ্ঞা করলেও দ্বিতীয় ধাক্কা কী বলে ট্রাম্প কাটাবেন সেটাই এখন দেখার বিষয়। - JahirUddin

Breaking

JahirUddin

You Can Find Anything Here

test banner

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Friday, November 11, 2016

ক’দিন বাদের আমেরিকার মসনদে বসার ভোটযুদ্ধ। যেখানে ডেমোক্রেটদের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবরিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু ভোটের আগেই নানা সমালোচনায় জড়াচ্ছেন ট্রাম্প। এবার নিজের মেয়ের স্তন নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করলেন হিলার এই প্রতিদ্বন্দ্বী। নারীদের নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অশ্লীল মন্তব্য করা ২০০৫ সালের ভিডিওটি প্রকাশের পর থেকে সর্বত্র, এমনকি নিজের দলের সদস্যদের পক্ষ থেকেও তীব্র সমালোচনার মুখোমুখি হচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভিডিওটি প্রকাশের পর নারী ও নারীদেহ নিয়ে ট্রাম্পের স্থূল ও অপমানজনক মন্তব্যের এমন আরও অনেক নতুন তথ্যই বেরিয়ে আসছে বেশ কিছু সংবাদ প্রতিবেদনে, যার বেশিরভাগেরই বিষয়বস্তু ট্রাম্পের নিজের মেয়ে। রেডিও ব্যক্তিত্ব হাওয়ার্ড স্টার্নকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দু’দশকেরও বেশি সময় ধরে দেয়া সাক্ষাৎকারগুলোর অডিও বিশ্লেষণ করে এর মূল কিছু অংশ প্রকাশ করেছে , যেখানে ট্রাম্প বারবার তার মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের দেহ নিয়ে সরস মন্তব্য করেছেন। এছাড়াও প্রকাশিত ভিডিওর মতো সাধারণভাবেই নারীদের নিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলেছেন তিনি। ২০০৬ সালের অক্টোবরে এক সাক্ষাৎকারে হাওয়ার্ড স্টার্ন ইভাঙ্কার স্তন নিয়ে মন্তব্য করায় ট্রাম্প বলেন, ‘ইভাঙ্কা সব সময়ই খুবই যৌন আবেদনময়ী। সে প্রায় ৬ ফুট লম্বা এবং একজন অসাধারণ সুন্দরী। ওর স্তন অনেক উন্নত। আকর্ষণীয়।’ এমনকি এর দু’বছর পর আরেক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প স্টার্নকে ইভাঙ্কা সম্পর্কে অশ্লীল ভাষায় প্রশংসা করারও অনুমতি দেন। এছাড়া নারীর বয়সভিত্তিক বৈশিষ্ট্য নিয়েও আলোচনা ছিল সাক্ষাৎকারগুলোর বিভিন্ন অংশে। আর মাত্র এক মাস বাকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের। এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে বিতর্কিত ভিডিও সাক্ষাৎকার প্রচারের পর থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে সমালোচনা ও বিরোধিতার মুখে আছেন এই রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। ট্রাম্পের নিজের দলেরই অনেকে তার সমর্থন থেকে সরে এসেছেন। অনেকে আবার তাকেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলছেন। এই পরিস্থিতি সামাল না দিতেই সিএনএন প্রকাশ করল এসব অডিও ক্লিপ। প্রথম ধাক্কায় নির্বাচন থেকে না সরার দৃঢ় প্রতিজ্ঞা করলেও দ্বিতীয় ধাক্কা কী বলে ট্রাম্প কাটাবেন সেটাই এখন দেখার বিষয়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here